No Widgets found in the Sidebar

রাজধানীর পল্লবীতে ছেলে (সৎ ছেলে) সুজন বিশ্বাসের হাতে শাহানা বেগম নামে এক নারী নিহত হয়েছেন।

শনিবার বিকাল সাড়ে পাঁচটায় পল্লবীর ১২ নম্বর বি ব্লকের ৭ নম্বর রোডের ১২৫ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহানার স্বামীর নাম সাইদুল ইসলাম (মেম্বার)। তিনি ওই বাড়ির কেয়ারটেকার। ঘটনার সময় তিনি মসজিদে ছিলেন। ওই বাড়িতে শাহানা তার স্বামীর সঙ্গে বসবাস করতেন। শাহানার এটি  দ্বিতীয় বিয়ে। শাহানার আগের ঘরে উজ্জ্বল নামে এক ছেলে রয়েছে। আর সৎ ছেলে সুজন অন্য জায়গায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। সুজন ক্যানসার আক্রান্ত রোগী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকালের দিকে শাহানা তার সৎ ছেলে সুজনের সঙ্গে ওই বাড়ির গ্যারেজ বসে কথা বলছিলেন। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সুজন তার সৎ মা শাহানাকে গ্যারেজে রাখা মাংস কাটার খাটিয়া দিয়ে মাথায় অনবরত আঘাত করতে থাকেন। এতে ঘটনাস্থলেই শাহানার মাথার মগজ বেরিয়ে আসে। এরপর ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক সুজন পালিয়ে যায়।

পল্লবী থানার ওসি পারভেজ ইসলাম বলেন, সুজনকে কিছুদিন আগে ডাকাতির প্রস্তুতির মামলায় গ্রেফতার করা হয়। ৭ দিন আগে জামিনে বেরিয়েছে। সে মাদকাসক্ত। তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *