হিজাব পরে কলেজে ঢুকতে বাধা দেয়ায় চাকরি ছাড়লেন ভারতের অধ্যাপিকা

কলেজে ঢোকার মুখে হিজাব খুলতে বলায় চাকরিতে ইস্তফা দিয়েছেন চাঁদনি নামে ভারতের কর্নাটক রাজ্যের জৈন পিইউ কলেজের এক অধ্যাপিকা। ওই অধ্যাপিকার দাবি, গত তিন বছর ধরে হিজাব পরেই ক্লাস করালেও কেউ কখনো তাকে তা খুলতে বলেননি।

এই প্রথম তাকে কেউ বাধা দিল। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ বলেছেন, হিজাব অথবা অন্য কোনও ধর্মীয় চিহ্ন থাকে এমন পোশাক পরে ক্লাস নেওয়া যাবে না। চাকরি নিয়ে অধ্যাপিকা বলেন, আত্মমর্যাদায় আঘাত হানায় চাকরি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ইস্তফায়ও এ কথা উল্লেখ করেছেন তিনি। হিজাবে নিষাধাজ্ঞা প্রসঙ্গে কর্তৃপক্ষের উদ্দেশে তিনি লেখেন, আপনাদের এই অগণতান্ত্রিক কাজের তীব্র বিরোধিতা করছি আমি। তবে ঘটনার সত্যতা অস্বীকার করেছেন ওই কলেজের অধ্যক্ষ কে টি মঞ্জুনাথ। বলেন, চাঁদনিকে তিনি বা কলেজের কোনো কর্তপক্ষ হিজাব পরে ক্লাস করতে বাধা দেননি।

উল্লেখ্য, গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব থাকবে কিনা এ নিয়ে বিতর্ক তীব্র আকার ধারণ করেছে গোটা ভারতবর্ষে। বিশেষত, কর্নাটকে। হিজাবের বিরুদ্ধে গেরুয়া মিছিলের সামনে ‘আল্লাহু আকবার’ বলে ভাইরালও হয়েছিলেন এক তরুণী। বিষয়টি গড়িয়েছে উচ্চ আদালতেও।