রংপুরে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ, অতঃপর ঢাকায় পৌঁছাতে বাস

    রংপুরে পোশাক শ্রমিকদের অবরোধ অবরোধ, অতঃপর ঢাকায় যেতে বাস – ছবি- সংগৃহীত

    পুলিশের মধ্যস্থতায় ৬ ঘণ্টা পর বিআরটিসির দোতলা বাসে ঢাকায় যাওয়ার ব্যবস্থা করার মাধ্যমে রংপুরের মর্ডান মোড় থেকে অবরোধ তুলে নিয়েছেন পোশাক শ্রমিকরা।

    রোববার থেকে শিল্প-প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ঘোষণায় শনিবার ভোর থেকেই হাজার হাজার পোশাক শ্রমিক কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় ও দিনাজপুর থেকে বিভিন্ন ছোট ছোট যানবাহনে এসে ভিড় জমান রংপুর মহানগরীর মডার্ন মোড়ে।

    কিন্তু মডার্ন মোড় থেকে ঢাকায় যাওয়ার কোনো যানবাহন না থাকায় তারা সকাল ৯টা থেকে সড়কে অবরোধ গড়ে তোলেন। ঢাকা যাওয়ার এই অবরোধের দাবিতে মুহূর্তেই বন্ধ হয়ে যায় মহাসড়কের সকল ধরনের যানবাহন চলাচল। তারা দাবি জানাতে থাকেন যেকোনোভাবে ঢাকায় যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিতে।

    শ্রমিকদের অভিযোগ, মেসেজ দিয়ে গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ তাদের জানিয়েছে, নির্দিষ্ট সময়ে যোগদান করতে না পারলে তাদের চাকরি থাকবে না। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সেখানে সেনাবাহিনী, বিজিবি ও পুলিশ শত চেষ্টা করেও হাজার হাজার শ্রমিককে কোনোভাবেই বোঝাতে পারছিলেন না।

    অবশেষে পুলিশ ঢাকা থেকে ঈদের আগে রংপুরে আসা দোতালা বিআরটিসি বাসে শ্রমিকদের যাতায়াতের বন্দোবস্ত করে দিলে বিকেল সাড়ে ৩টা নাগাদ তারা অবরোধ তুলে নেন।

    রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) আবু মারুফ হোসেন জানিয়েছেন, গার্মেন্টস খুলে দেয়ার কারণে পোশাক শ্রমিকদের ঢাকায় ফিরে যাওয়ার ব্যাপারটি সরকারের নজরে আসে। শ্রমিকরা সকাল থেকে অবরোধ গড়ে তোলেন।

    তিনি বলেন, আমরা সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে সিদ্ধান্তের মাধ্যমে ঈদের আগে ঢাকা থেকে রংপুরে আসা দ্বিতল বিআরটিসি বাসগুলোতে তাদেরকে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দেই। এরপর তারা অবরোধ তুলে নেন। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।